পেটের চর্বি জমার ৭ টি প্রধান কারণ ও প্রতিকার !!

পেটের চর্বি তো আর এমনি এমনি বাড়ে না, কিছু কারণ অবশ্যই আছে। যখন-তখন খাবেন, যা-তা খাবেন, ঠিকমতো ঘুমাবেন না, তাহলে তো চবি বাড়বেই। গবেষকরা পেটের চর্বি জমার পেছনে এমনি অনেক কারণ তুলে ধরেন। এর মধ্যে সাতটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ পাঠকদের জন্য।

*নিয়মিত কোমল পানীয় পান করলে

কোকাকোলা, পেপসি, স্প্রাইট ইত্যাদি কোমল পানীয় নিয়মিত পান
করলে আপনি ইচ্ছে করলেও পেটে চর্বি জমা রোধ করতে পারবেন না। গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিদিন এক ক্যান পরিমান কোমল পানীয় পান করলে খুব দ্রুত আপনার কোমরের চারিদিকে ও পেটের চর্বি জমবে।

*সব বেলায় বেশি খেলে

প্রত্যেক বেলায় বেশি খেলে পেটের চর্বি জমবেই, এটার জন্য কোনো গবেষণার দরকার নেই। তাই খাওয়ার ব্যাপারে একটু নিয়ন্ত্রণ দরকার। সকালে বেশি খান, দুপুরে একটু কম খান এবং রাতে আর একটু কম খান। চর্বিমুক্ত থাকবেন।

*বেশি রাত করে খেলে

বেশি রাত করে খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়লে পেটের চর্বি আপনার কাছে দৌড়ে দৌড়ে আসবেই। তাই যত তাড়াতাড়ি পারা যায় রাতের খাবার খেয়ে নেয়াই ভালো।

*অমনোযোগ, রাগ, দুঃখ অভিমান বা দুঃশ্চিন্তার মধ্যে খেলে

অমনোযোগ, রাগ, দুঃখ অভিমান বা দুঃশ্চিন্তার মধ্যে খাবার গ্রহণ করলে উপকারের চেয়ে অপকারই হয় বেশি। কারণ এ সময় আপনি যে খাবার খাবেন তার বেশিরভাগ অংশই পেটের চর্বি হিসেবে জমা হবে।

*কম ক্যালোরির খাবার বেশি করে খেলে

কম ক্যালোরির খাবার যদি বারবার খান, তাহলে বেশি ক্যালোরির খাবার গ্রহণ থেকে তা কি কোনো অংশে কম? তাই কম ক্যালোরির খাবার বেশি করে খেলে পেটের চর্বি আপনার সঙ্গ ছাড়বে না।

*নিজেকে ঘুম বঞ্চিত রাখলে

পর্যাপ্ত না ঘুমালে পেটের চর্বি জমবে এটা অনেক দিনের প্রতিষ্ঠিত কথা। প্রত্যেক বয়স্ক মানুষের ৭ থেকে ৮ ঘণ্টা ঘুমানোর প্রয়োজন। যদি নিয়মিত এর চেয়ে কম ঘুম হয়, তাহলে চর্বিমুক্ত থাকার স্বপ্ন কোনোদিনই পূরণ হবে না।

*প্রয়োজনীয় প্রোটিন গ্রহণ না করলে

আমরা বিভিন্ন খাবারের সঙ্গে প্রোটিন গ্রহণ করি। কিন্তু কোনো কারণে যদি তা পর্যাপ্ত না হয়, তাহলে চর্বি জমবেই।

স্বাস্থ্যতথ্য বিষয়ক আপনার ডক্টর সাইটটি নিয়মিত ভিজিট করে আপনার সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করুন।ধণ্যবাদ

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন