ঘরোয়া ৫টি প্যাক ব্যবহারে চুল করে তুলুন স্বাস্থ্যোজ্বল !!

স্বাস্থ্যজ্বল ঝলমলে চুল সবার কাম্য। কিন্তু চাইলে তো আর ঝলমলে চুল পাওয়া সম্ভব নয়। এরজন্য প্রয়োজন পড়ে যত্নের। ব্যস্ত এই নগর জীবনে চুলের যত্ন নেওয়ার মতো সময় অনেকের থাকে না। অনেকেই মনে করেন সহজ কোন প্যাক ব্যবহার করে যদি চুলের সমস্যার সমাধান করা যেত, তবে দারুন হতো! আপনার ইচ্ছা কিছুটা হলেও পূরণ করবে এই হেয়ার প্যাকগুলো। এই প্যাকগুলো শুধু আপনার সময় বাঁচায় না, এটি আপনার চুলের গোড়ায় গোড়ায় পুষ্টি যুগিয়ে চুল করে তুলবে সিল্কি।

১। নারকেল তেল

সহজ এবং সস্তা একটি উপায় হলো নারকেল তেল। রাতে নারকেল তেল ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন। এটি চুলে সারারাত রাখুন। পরের দিন শ্যাম্পু করে ফেলুন। এবার দেখুন চুলগুলো সিল্কি হয়ে গেছে।

২। ডিম

৩টি ডিম, ২ টেবিলচামচ অলিভ অয়েল অথবা নারকেল তেল এবং ১ টেবিলচামচ মধু ভাল করে মিশিয়ে নিন। চুলে ভাল করে লাগিয়ে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। কুসুম গরম পানি দিয়ে চুল শ্যাম্পু করে ফেলুন। আরেকটি প্যাক ব্যবহার করতে পারেন। ২টি ডিম, ১/২ কাপ টকদই, ২ টেবিল চামচ বাদাম তেল মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। প্যাকটি যেন ঘন ক্রিমি হয়, সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন। ম্যাসাজ করে চুলে লাগান। আধাঘণ্টা পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। এটি আপনি আগের দিন গোসলের সময় লাগাতে পারেন।

৩। মেয়নিজ

মেয়নিজের অ্যামিনো অ্যাসিড, প্রোটিন এবং অ্যান্টি অক্সিডেন্ট চুল করে তোলে সিল্কি। আধা কাপ(চুলের দৈর্ঘ্য অনুযায়ী) মেয়নিজ চুলে ভালো করে লাগিয়ে নিন। এরপর একটি শাওয়ার ক্যাপ চুলে পড়ে নিন। ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। এটি সপ্তাহে একবার ব্যবহার করতে পারেন।

৪। দুধ

একটি স্প্রে বোতলে ১/৪ কাপ ঠান্ডা দুধ এবং কুসুম গরম পানি মিশিয়ে নিন। এবার এটি সম্পূর্ণ চুলে স্প্রে করে নিন। এটি ১০ মিনিট চুলে রেখে দিন। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। চুল নরম কোমল ঝলমলে হয়ে গেছে।

৫। মধু

চুল দ্রুত সিল্কি করতে মধু বেশ কার্যকর। দুই কাপ কুসুম গরম পানিতে দুই টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি স্প্রে বোতলে ভরে রাখুন। এটি মাথার তালুতে ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন। ১৫-২০ মিনিট পর কুসুম গরম পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে দুইবার করতে পারেন।

নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক দিয়ে আমাদের সাথে থাকুন